Main Menu

বন্যার্ত পরিচয়ে মাঠে নেমেছে প্রতারকচক্র হাতিয়ে নিচ্ছে টাকা পয়শা

বন্যার্ত পরিচয়ে মাঠে নেমেছে প্রতারকচক্র : সতর্কতা অবলম্বন করুন

নিজস্ব প্রতিনিধি-
কেরাণীগঞ্জ টুয়েন্টিফোর ডটকম।

বন্যা-দুর্গত পরিচয়ে চলছে প্রতারনা ব্যবসা,
আমরা বন্যা-দুর্গত পরিচয় দিয়ে একদল পুরুষ মহিলা ও শিশুদের মাঠে নামিয়েছে প্রতারকচক্র।
মানব দরদী জনগনকে প্রতারনার ফাঁদে ফেলে হাতিয়ে নিচ্ছে টাকা পয়শা,পথরোধ করলে আইনের লোক পরিচয়ের কোন ব্যক্তি/গোষ্ঠী এসে দাপট ঝাড়ে প্রতারক টিমগোলো -কে মুক্ত করার জন্য।

সারাদেশের বন্যা পরিস্থিতির ভয়াবহতা -কে পূঁজি করে মাঠে নেমেছে প্রতারকচক্র,পাঁচ ছয়জন পুরুষ মহিলার একাধিক টিম তৈরী করে হাতিয়ে নিচ্ছে টাকা পয়শা।
এরা বিভিন্ন স্থানে গিয়ে নিজেদের বন্যা-দুর্গত পরিচয়ে জনগনের কাছ থেকে সাহায্য তুলছে।

ভাগ্যের পরিহাসে প্রতারক চক্র কর্তৃক মাঠেনামা একাধিক টিমের মধ্যে দুইটি টিম আগানগরস্থ (কেরাণীগঞ্জ টুয়েন্টিফোর অফিসে একটি ও নিউজ ঢাকা টুয়েন্টিফোর অফিসে আরেকটি) একই সময়ে সাহায্য চাইতে আসে,
দুটো অফিসেই তাদেরকে দুর্যোগকালীন আশ্রয় ও খাবারের ব্যবস্থা করার প্রতিশ্রুতি দিলে তারা তা গ্রহন করতে অস্বীকার করে।

চক্রের সাথে কেরাণীগঞ্জ টুয়েন্টিফোর ও নিউজ ঢাকা টুয়েন্টিফোরের যৌথ আলোচনায় উঠে আসা তথ্য নিচে দেয়া হলো।

কোথা থেকে এসেছেন? : আমরা কুড়িগ্রাম থেকা আইচি,আমাগের বাড়ীঘর বন্যায় তলায়া গেছে
কখন এসেছেন : কিছুক্ষন আগে আইচি,আমাগো সাথে আরোও লোক আছে ওরা আগানগর ব্রিজের সিড়ির সামনে আছে
আপনাদের সাথে কিছু নেই কেন,কোন ব্যাগ বা বস্তা? : আমরা কোনমতে জান নিয়া চইলা আইচি,
বন্যার পানি তো জলোচ্ছাসের মত বৃদ্ধিপায় না , অথচ আপনারা বলছেন জান নিয়ে চলে আসছেন,
সেখানে কি জলোচ্ছাস হয়েছে নাকি?  : নিরুত্তর

আমরা আপনাদের -কে কেরাণীগঞ্জের একাধিক সামাজিক উন্নয়ন সংগঠনের সংগ্রহ করা “বন্যার্ত কল্যাণ ফান্ড” থেকে দুর্যোগকালীন থাকা খাওয়ার ব্যবস্থা করে দেই? : তা লাগবনা,আমাগোরে
পরিবার নিয়া খাওয়ার জন্য সাহায্য করেন।
থাকবেন কোথায়? : আমাগের পরিচিত রিক্সাওয়ালা আছে ব্রিজের সিড়ির সামনে,ওরা ঘরভাড়া লইয়া দিবো।
ঘর পাবার আগে পর্যন্ত থাকার ব্যবস্থা করি? : যারা ঘরভাড়া নিয়া দিবো ওরাই ব্যবস্থা করব।
আচ্ছা চলুন আপনাদের পরিচিত লোকগুলোর সাথে ব্রিজের নিচে কথা বলে দেখি।

এখানে তো কেউ নেই দেখছি? : ওরা তো এইহানে বহা আছিলো
পরিচিত রিক্সা চালকগুলো? : সবাই তো এইহানেই আছিলো

ঘন্টাখানেক সময় পরেও কুড়িগ্রাম থেকে সাথে আসা লোকগুলো অথবা পরিচিত রিক্সা চালকগুলোর মুখ দেখা যায়নি।

তবে ব্রিজের উপর থেকে নেমে আসা পঞ্চাশাধিক বয়সের এক ভদ্রলোক, প্রথমে আইনের লোক পরবর্তিতে মানবাধিকার কর্মী পরিচয়ে দাপুটে গলায় হট্টগোল সৃষ্টি করার চেষ্টা চালাতে চাইলে,আগানগর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জনাব জাহাঙ্গীর শাহ্ খুশী সাহেবের হুশিয়ারীর কাছে নত হয়ে চম্পট দেয়।

© 2017, Presslist24.com. <<- প্রথম পাতায় ফিরতে ক্লিক করুন http://www.keranigonj24.com

Facebook Comments





Leave a Reply